বাংলাদেশ পেট্রোল পাম্প ও ট্যাংক-লরি মালিক ও শ্রমিক ঐক্য পরিষদ পহেলা ডিসেম্বর থেকে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। প্রচলিত বা গতানুগতিক হারে কমিশনসহ প্রায় ১৫ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে তাদের এই ধর্মঘটের ডাক।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরের দিকে বগুড়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব ও রাজশাহী বিভাগীয় সভাপতি জনাব মিজনর রহমান রতন এই ধর্মঘটের ডাক দেন। দাবি মানা না হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য চলবে এই ধর্মঘট। 

খুলনা ও রংপুর বিভাগে এ সংগঠনের কমিটিও আলাদাভাবে এই ধর্মঘটের ঘোষণা দেবে বলে জানা গেছে। রাজশাহী বিভাগীয় কমিটি এক সংবাদ সম্মেলনে এটা জানিয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে ধর্মঘটের কর্মসূচি ঘোষণা করেন বাংলাদেশ পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব ও রাজশাহী বিভাগীয় সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা জনাব মিজানর রহমান রতন। 

ধর্মঘট শুরুর আগে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ১৫ দফা দাবি মেনে নেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আল্টিমেটাম দিয়েছেন তারা। 

তাদের জানানো ১৫ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে, জ্বালানি তেল বিক্রির প্রচলিত কমিশন কমপক্ষে সাড়ে সাত শতাংশ প্রদান, জ্বালানি তেল ব্যবসায়ীরা কমিশন এজেন্ট নাকি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান-বিষয়টি সুনির্দিষ্টকরণ, প্রিমিয়াম পরিশোধ সাপেক্ষে ট্যাংকলরি শ্রমিকদের পাঁচ লাখ টাকা দুর্ঘটনা বীমা প্রথা প্রণয়ন, ট্যাংকলরির ভাড়া বৃদ্ধি, পেট্রোল পাম্পের জন্য কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান অধিদপ্তরের লাইসেন্স গ্রহণ বাতিল, পেট্রোল পাম্পের জন্য পরিবেশ অধিদপ্তরের লাইসেন্স গ্রহণ বাতিল। এছাড়া, পেট্রোল পাম্পে অতিরিক্ত পাবলিক টয়লেট, জেনারেল স্টোর ও ক্লিনার নিয়োগের বিধান বাতিল, সড়ক ও জনপথ বিভাগ কর্তৃক পেট্রোল পাম্পের প্রবেশ দ্বারে ভূমির জন্য ইজারা গ্রহণের প্রথা বাতিল, ট্রেড লাইসেন্স ও বিস্ফোরক লাইসেন্স ব্যতিত অন্য দপ্তর বা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক লাইসেন্স গ্রহণের সিদ্ধান্ত বাতিল, বিএসটিআই কর্তৃক আন্ডার গ্রাউন্ড ট্যাংক পাঁচ বছর অন্তর বাধ্যতামূলক ক্যালিব্রেশনের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছেন তারা।

দাবি জানানোর সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহসভাপতি এম এ মোমিন দুলাল, রাজশাহী বিভাগীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ এআর এম খোরশেদ আলম লিটন, আব্দুল করিম, জাহিদুর রহমান, এবিএম সিদ্দিক, উত্তরবঙ্গ ট্যাংকলরি শ্রমিক ইউনিয়ন বাঘাবাড়ী ঘাট শাখার কার্যকরী সভাপতি আজিজুর রহমান গ্যাদা, সাংগাঠনিক সম্পাদক আজমত মোল্লাসহ প্রমুখ।

তারা সংবাদ সম্মেলনে আরও জানান, সরকারের সাথে বারবার যোগাযোগ করা হলেও শুধু মৌখিক আশ্বাস ছাড়া আর তেমন কিছুই পাওয়া যায়নি। তারা চলমান সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধান চাচ্ছেন। 

তথ্যসূত্রঃ বিডিনিউজ২৪.কম ও ২৪লাইভনিউজপেপার.কম

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।