পুরো বিশ্বজুড়ে চলছে করোনা মহামারি যার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়েছে বেশ তীব্রভাবে। বিগত কয়েক মাস ধরেই কখনো চলেছে লকডাউন, কখনো নিরাপত্তার স্বার্থে পণ্য পরিবহন স্বাভাবিকের তুলনায় হয়েছে কম। তবে এত প্রতিকূলতার মাঝেও জিম ডিজিটাল ট্রাক কাজ করে গিয়েছে নিরলসভাবে।  

গেল মাসে সমগ্র দেশজুড়ে জিম করেছে অসংখ্য ট্রিপ। চট্টগ্রাম বন্দর, মোংলা বন্দরসহ দেশের সব বিভাগেই ঘুরেছে জিমের চাকা। পাথর, সিমেন্ট, স্ক্র্যাপ, তেল, গাড়ির যন্ত্রাংশ, চাল, ডাল, গম, ময়দা, তামাক, থ্রি-হুইলার, মোটরসাইকেল, ভারী ইলেকট্রিক্যাল যন্ত্রাংশ ও পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ সামগ্রী ছিল জিমের পরিবহনের তালিকায়। সমগ্র দেশজুড়ে যাতে খাদ্যশস্যের যোগান স্বাভাবিক থাকে সেজন্য জরুরী খাদ্য পরিবহনের ভূমিকা রেখেছে জিম। 

গত মাসে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন খাতে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পে কাজ করেছে জিম। ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, সিলেট, বাঘেরহাট, মাদারীপুর, কুষ্টিয়া, পঞ্চগড়, রাজশাহী, সাতক্ষীরা, ঠাকুরগাঁও, ময়মনসিংহ, গাজীপুর, নরসিংদী, পাবনা, বগুড়া, নোয়াখালী, বরিশাল, লালমনিরহাট, নাটোর, সিরাজগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জে জিমের ট্রাক পণ্য নিয়ে পৌঁছে গিয়েছে। 

গত মাসের সাফল্য ধরে রাখতে এ মাসেও জিম কাজ করছে নিরলসভাবে। সারাদেশে পণ্য পরিবহনের গতি ধরে রাখতে জিম কাস্টমার ও ট্রাক মালিক সকলের সাথে কাজ করছে প্রতিনিয়ত।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।