গত সোমবার থেকে ভারত-বাংলাদেশ প্রটোকল রুটের চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে নদীপথে ভারতের পণ্য পরিবহন শুরু হয়েছে। এর ফলে জাহাজে করে বাংলাদেশ মধ্য দিয়ে পণ্য ভারতে যাবে।

পশ্চিমবঙ্গের হলদিয়া বন্দর থেকে এ যাত্রা শুরু হবে এবং পরে তা বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে আসামের পান্ডুতে পৌঁছাবে। এই যাত্রায় ১২-১৫ দিনের মতো সময় লাগবে। জাহাজটি গঙ্গা, সুন্দরবন হয়ে বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে আসামের ব্রক্ষ্মপুত্র দিয়ে যাবে। পুরো যাত্রাপথে পণ্যবাহী জাহাজটি মোট ১৪২৫ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেবে।

এমভি মহেশ্বরী নামের জাহাজটিতে মোট ৫৩টি কনটেইনার রয়েছে। কনটেইনারগুলোতে পেট্রোকেমিক্যাল সামগ্রী, ভোজ্য তেল ও অন্যান্য পানীয় সামগ্রী রয়েছে।

সোমবার ভারতের জাহাজ মন্ত্রকের সচিব জনাব গোপালকৃষ্ণ এই যাত্রার সূচনা করেছেন বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে ইনল্যান্ড ওয়াটারওয়েজ অথরিটির কর্তারা জানিয়েছেন, এই রুটে সারা বছরে প্রায় আড়াই মিটার নাব্যতা বজায় রাখার চেষ্টা হচ্ছে। এ জন্য ৩০৫ কোটি রুপি খরচ করবে ভারত সরকার। বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ থেকে দইখাওয়া ও আশুগঞ্জ থেকে জকিগঞ্জ পর্যন্ত পলি তোলার কাজ হবে এই অর্থ দিয়ে।

তথ্যসূত্রঃ দৈনিক মানবজমিন ও ইনসাফ২৪.কম

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।