রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল ইসলাম সুজন মন্তব্য করেছেন,  বাংলাদেশ-ভারতের সরকার পর্যায়ের সম্পর্ক এরই মধ্যে যেভাবে ঘনিষ্ঠ হয়েছে, ঠিক একই ভাবে দু’দেশের জনগণের সাথে জনগণের সম্পর্কও ঘনিষ্ঠ করা হবে।

নীলফামারিতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে, ৭৮২ নম্বর পিলারের কাছে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-ভারতের নতুন রেলপথ (চিলাহাটী-হলদিবাড়ী) সংযোগ নির্মাণ কাজে বিএসএফ ও বিজিবি’র সমন্বয় বৈঠকে তিনি একথা বলেন।

চলতি বছরের জুনে চিলাহাটী-হলদিবাড়ী রেলপথের নির্মাণ কাজ শেষ ও ২০২২ সালের মধ্যে মোংলা বন্দর থেকে ভারতের শিলিগুড়ি পর্যন্ত রেল সংযোগ চালু হবে জানান তিনি।

তিনি আরো জানান, এই রেলপথটি নির্মাণ করা হলে উভয় দেশ অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবে। অন্যদিকে ভারত বাংলাদেশের ভূমি ব্যবহার করে কোলকাতা থেকে উত্তর-পূর্বাঞ্চলে সরাসরি ট্রেন চালাতে চাইলে প্রচুর সময়ও বাঁচবে। 

এই রেলপথের মাধ্যমে ভারতের পাশাপাশি ভুটান, নেপালও  যুক্ত হওয়ার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

তথ্যসুত্রঃ এস এ টিভি.টিভি 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।