ঢাকায় পরিবহনের চাপ কমাতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে এতে পরিবহন ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা আসবে ও যানজট নিরসন হবে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ঢাকার ভেতরের টার্মিনালগুলোয় শুধু সিটি সার্ভিস বাসগুলো রাখা হবে। আন্তঃজেলা পরিবহনের জন্য নতুন বাস টার্মিনাল নির্মাণ করা হবে।

গাবতলী, সায়েদাবাদ ও মহাখালীর আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল সরিয়ে ফেলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বিকল্প হিসেবে ঢাকার প্রবেশপথে আরো ৯টি বাস টার্মিনাল নির্মাণ করা হবে।

বর্তমান ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ) সূত্রে জানা গেছে, কর্তৃপক্ষের ১৩তম সভায় মহানগরী থেকে আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল সরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ফলে ঢাকার প্রবেশ পথে মোট ৯টি টার্মিনাল নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ডিটিসিএ এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন করবে। এরই মধ্যে প্রায় পাঁচ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পের মেয়াদ ধরা হয়েছে ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত। 

প্রকল্পের স্টাডি শেষ হলেই শুরু হবে মূল প্রকল্পের কাজ। এ ব্যাপারে ঢাকা উত্তর, দক্ষিণসহ সংশ্লিষ্ট সিটি কর্পোরেশন এবং রাজউক, পরিবহন মালিকপক্ষ ও পৌরসভার মেয়রদের সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে ডিটিসিএ’র অতিরিক্ত নির্বাহী পরিচালক জনাব এ এস এম ইলিয়াস শাহ বলেন, “পরিকল্পনা অনুযায়ী রাজধানীর ভেতরে শুধু চলবে সিটির গণপরিবহন। আর আন্তঃজেলা পরিবহনের জন্য ঢাকার প্রবেশপথে নতুন করে টার্মিনাল করা হবে। এর ফলে রাজধানীতে যানজট-ভোগান্তি অনেকটা কমে যাবে।” 

এ বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ‎ওবায়দুল কাদের বলেন, “বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করে ক্রমান্বয়ে ঢাকা মহানগরী থেকে আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল সরিয়ে নেওয়া হবে। এজন্য স্থান নির্ধারণসহ অন্যান্য কাজ দ্রুত সময়ে শেষ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ঢাকার পরিবহনসহ অন্যান্য সমস্যা সমাধানে খুব দ্রুত উদ্যোগ নেওয়া হবে।” 

তথ্যসূত্রঃ বাংলা ট্রিবিউন, দ্য বাংলাদেশ টুডে ও আমাদেরসময়.কম  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।